নিম্ন মানের উইকেট বানিয়েছে পাকিস্তান: শোয়েব

ক্রীড়া প্রতিবেদক | ২৫ জানুয়ারি ২০২০ | ১:০৮ অপরাহ্ণ

বাংলাদেশ পাকিস্তান টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম ম্যাচ বোকা বানিয়েছে সবাইকে। প্রথমে ফ্ল্যাট উইকেট মনে হলেও পরে দেখা গেছে এখানে রান তোলাটা কঠিন। এ নিয়ে কড়া সমালোচনা করছেন সবাই। পাকিস্তানের সাবেক ক্রিকেটারদের মধ্যে ইনজামাম উল হক ও রশিদ লতিফ প্রথমে এ ব্যাপারে মুখ খুলেছেন। আর সরাসরি উইকেটকে নিম্নমানের বলেছেন গতিতারকা শোয়েব আখতার।

ইউটিউবে নিয়মিত হাজির হন শোয়েব।, কালও ম্যাচ শেষে নিজের ইউটিউব চ্যানেলে কথা বলেছেন এই বোলার। সেখানে পাকিস্তানকে গুরুত্বপূর্ণ এক জয় পাওয়ায় অভিনন্দন জানিয়েছেন শোয়েব। সে সঙ্গে গ্যালারি ফাঁকা দেখায় হতাশাও প্রকাশ করেছেন, ‘একটু হতাশ হয়েছি। আমি আরও বেশি দর্শক আশা করেছিলাম। আরও বেশি দর্শক হওয়া উচিত ছিল। আগে দলকে শুভেচ্ছা জানিয়ে নিই। কারণ ওরা ভালো জয় পেয়েছে।’

এরপরই উইকেট নিয়ে তাঁর হতাশা জানিয়েছেন স্বীকৃত ক্রিকেটের সবচেয়ে দ্রুতগতির বল করার রেকর্ডের মালিক, ‘কিন্তু এ জয়ের মজাটা মিলছে না। কারণ পাকিস্তান ভুল থেকে শিক্ষা নেয়নি। বিশেষ করে উইকেট বানানোর ক্ষেত্রে। আমরা যে উইকেট বানিয়েছি সেটা শতভাগ নিম্নমানের উইকেট ছিল। এখানে মানুষ ম্যাচ দেখতে চায়, বড় ইনিংস দেখতে চায়। ২০০ রান দেখতে চায়। এখানে ব্যাটসম্যানের কাছে বল যাচ্ছে না। বোলাররা গতি পাচ্ছে না। বলে গতি নেই, বাউন্স নেই। বল উঠছিল না।’

শোয়েব পাকিস্তানের ক্রিকেট কর্মকর্তাদের বলেছেন, উইকেট নিয়ে নতুন করে ভাবতে। তারা নাকি এখনো আধুনিক প্রযুক্তি গ্রহণ করছেন না। আর এ কারণেই কালকের এমন উইকেট দেখা গেছে। শোয়েবের দাবি, এমন উইকেটে খেলা হলে দর্শক টানা কঠিন হয়ে যাবে খেলোয়াড়দের পক্ষে, ‘দর্শকদের কাছে অনুরোধ থাকবে তারা যেন আরও বেশি করে আসে। আমি জানি আজ (কাল) তাদের পক্ষে আসা কঠিন ছিল। কিন্তু আমাদের আরও বেশি করে স্টেডিয়ামে আসা উচিত এবং উইকেট ভালো হওয়া উচিত। অভিষিক্ত হারিস ভালো করেছে। কিন্তু উইকেটে পেস, বাউন্স কিছু ছিল না। ১৫ বছর আগে যখন মুলতান, পেশোয়ার বা লাহোরে যখন খেলতাম তখনো এমন ছিল। কিছু পরিবর্তন আনা দরকার। কিউরেটর আনুন, মাটি পরীক্ষা করুন। বিশেষজ্ঞ আনুন। না হলে খুব কঠিন হয়ে যাবে সবকিছু। এ ধরনের ক্রিকেটে দর্শকের আগ্রহ কমে যায়।’

বিডিটি/ওএফ

খেলা
২৫ জানুয়ারি ২০২০