বরাদ্দকৃত অনুদান চুরি ও লুটপাটকারীদের প্রকাশ্যে মৃত্যুদন্ড দেওয়া উচিত, ড. কর্নেল (অব) অলি আহমদ।

নিজস্ব প্রতিবেদক | ১২ এপ্রিল ২০২০ | ২:১৪ অপরাহ্ণ

করোনা নামক মহামারীর কাছে সারা বিশ্ব জখন অসহায় তখন  দেশের এই দুঃসময়ে গরিব ও দুস্থ মানুষদের জন্য বরাদ্দকৃত অনুদান চুরি ও লুটপাটকারীদের প্রকাশ্যে মৃত্যুদন্ড চেয়েছেন লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টির প্রেসিডেন্ট ও জাতীয় মুক্তিমঞ্চের আহ্বায়ক ড. কর্নেল (অব) অলি আহমদ। তিনি বলেন, প্রতিদিন আমরা মিডিয়াতে যে পরিমাণ করোনা ভাইরাসের রোগীর তালিকা পাচ্ছি তার চেয়েও বেশি পাচ্ছি চাল চোরের সংখ্যা। গতকাল এলডিপির সাংগঠনিক সম্পাদক সালাহউদ্দিন রাজ্জাক স্বাক্ষরিত এক বিবৃতিতে তিনি এসব কথা বলেন। অলি আহমদ বলেন, লকডাউনের কারণে সমগ্র দেশে কয়েক কোটি হতদরিদ্র এবং বেকার মানুষ অতি কষ্টে জীবনযাপন করছে।

আরো পড়ুন

তাদের এই কষ্ট লাঘবের জন্য সরকারের পক্ষ থেকে স্বল্পমূল্যে চাল এবং নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যসামগ্রী বিতরণের ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। কিন্তু করোনাভাইরাসের মতো এত বড় মহামারীর মধ্যেও দুর্নীতিবাজরা এ ত্রাণসামগ্রী ও স্বল্পমূল্যের চাল আত্মসাৎ করতে ব্যস্ত। তিনি বলেন, জাতির এই ক্রান্তিকালে যারা গরিবের হক মেরে খায় তাদের প্রকাশ্যে মৃত্যুদন্ড দেওয়া উচিত। কারণ এরা দেশের শত্রু এবং মানবতার শত্রু। এ ধরনের পশুদের বেঁচে থাকার কোনো অধিকার নেই। সরকারের প্রতি অনুরোধ জানিয়ে অলি আহমদ বলেন, এসব ত্রাণসামগ্রী এবং স্বল্পমূল্যের চাল সশস্ত্রবাহিনীর সদস্যদের তত্ত্বাবধানে বিতরণ করা একান্তই প্রয়োজন। এতে হতদরিদ্র, বেকার শ্রমিকরা উপকৃত হবে এবং জনগণও শান্তিতে থাকবে।

জাতীয়
১২ এপ্রিল ২০২০