করোনার সন্দেহভাজন ৭ জনের মৃত্যু

নিজস্ব প্রতিবেদক | ৩০ মার্চ ২০২০ | ১১:০৪ অপরাহ্ণ

করোনাভাইরাসের বিভিন্ন  উপসর্গ  নিয়ে  গত ২৪ ঘণ্টায় সারা দেশে ৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। এদের শরীরে কোভিড১৯ এর উপস্থিতি ছিল কিনা তা নিশ্চিত নয় বলে জানিয়েছে স্থানীয় প্রশাসন। পরীক্ষার জন্য লাশ থেকে স্যাম্পল গ্রহণ করে আইইডিসিআর-এ পাঠানো হয়েছে বলে জানিয়েছেন স্থানীয় প্রশাসনের কর্মকর্তারা।

 

গত শনিবারে রাতে ঢাকা মোহাম্মপুরের নজরুল রোডে করোনাভাইরাসের উপসর্গ নিয়ে এক নারীর মৃত্যু হয়। মোহাম্মদপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল লতিফ বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, নজরুল রোডের বাসিন্দা ৫০ বছর বয়সী রাবেয়া বেগমের করোনা উপসর্গ নিয়ে মৃত্যুর খবর পেয়েছি। বিষয়টি আমরা সংশ্লিস্টদের কাছে জানিয়েছি।

 

গতকাল সকাল সাড়ে ৯টার দিকে মানিকগঞ্জে করোনাভাইরাসের লক্ষণ নিয়ে সুচিত্রা সরকার (২৬) নামে এক গৃহবধ‚কে মানিকগঞ্জ সদর উপজেলার মুন্নু মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আনা হলে সেখানকার চিকিতসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। সুচিত্রা সরকার হরিরামপুর উপজেলার বলড়া ইউনিয়নের বড়ইছড়া গ্রামের মুদি দোকানদার নিতাই সরকারেরর স্ত্রী। মুন্নু মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের উপপরিচালক এস এম মনিরুজ্জামান জানান, তিনি সাতদিন ধরে জ্বর, কাশি ও শ্বাসকষ্ট এবং দুদিন ধরে পাতলা পায়খানায় আক্রান্ত ছিলেন।

নওগাঁর রানীনগরে ঢাকা থেকে আসা এক যুবক জ্বর ও কাশিতে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন। পরিবারের অভিযোগ করোনাভাইরাস সন্দেহে চিকিতসা না পেয়ে মারা গেছেন তিনি। গত শনিবার রাতে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিতসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি। রাতেই তার লাশ গ্রামের বাড়িতে নিয়ে আসা হয় ।

শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের করোনা ইউনিটে চিকিতসাধীন অবস্থায় আরও একজনের মৃত্যু হয়েছে। গতকাল সকাল ৭টা ২০ মিনিটে তার মৃত্যু হয়। করোনা ইউনিটে মারা যাওয়া ৪০ বছর বয়সী ওই ব্যক্তির বাড়ি পটুয়াখালী সদর উপজেলার গোহানগাছিয়া গ্রামে।

 

খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আইসোলেশনে থাকা সুলতান শেখ (৭০) মারা গেছেন। গতকাল সকাল ৯টার দিকে তার মৃত্যু হয়। সুলতান শেখ নড়াইল জেলার কালিয়া উপজেলার পুরুলিয়ার মৃত আঃ গফুর শেখের ছেলে। হাসপাতাল স‚ত্রে জানা গেছে, গত শনিবার দুপুরে সুলতান শেখকে খুমেক হাসপাতালের করোনা আইসোলেশনে ভর্তি করা হয়েছিল।

 

এদিকে গত শনিবার রাত ১২টার দিকে শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে  করোনা ইউনিটে ৪৫ বছর বয়সী আরেক নারীর মৃত্যু হয়েছে। তিনিও জ্বর, গলাব্যথা ও শ্বাসকষ্টে ভুগছিলেন। শনিবার অবস্থার অবনতি হলে তাকে রাত পৌনে ১২টার দিকে শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ১২টার দিকে তার মৃত্যু হয়। তার বাড়ি বরিশাল নগরীতে।

 

পটুয়াখালীতে সর্দি-কাশিতে আক্রান্ত হয়ে আব্দুর রশিদ (৬৫) নামে এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে। গত শনিবার বিকেলে শহরের কালিকাপুর এলাকার বাদবরবাড়ি সংলগ্ন এলাকায় নিজ বাসায় ওই ব্যক্তির মৃত্যু হয়। তবে রাতে করোনাভাইরাস পরীক্ষার জন্য ওই ব্যক্তির শরীর থেকে নমুনা সংগ্রহ করা হয়। আব্দুর রশিদ ভোলা জেলার লালমোহন উপজেলার সাতবাড়িয়া গ্রামের মৃত কেরামত আলী ছেলে। আব্দুর রশিদ পেশায় ভ্যানচালক ছিলেন। পটুয়াখালীর সিভিল সার্জন জাহাঙ্গীর আলম জানান, মৃত রশিদ দীর্ঘদিন ধরে সর্দি-কাশিতে ভুগছিলেন। করোনাভাইরাস সন্দেহ করায় তার লাশ থেকে স্যাম্পল গ্রহণ করে পরীক্ষার জন্য আইইডিসিআর এ পাঠানো হচ্ছে।

সর্বমোট বরিশালে ২ জন, রাজধানী ঢাকা, খুলনা, পটুয়াখালী, নওগাঁ ও মানিকগঞ্জে একজন করে মোট ৭জনের করোনাভাইরাসের বিভিন্ন  উপসর্গ  নিয়ে  গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু হয়েছে।

 

সারাদেশ
৩০ মার্চ ২০২০